• লেইটেস্ট

    কামিং সুন

    বৃহস্পতিবার     ১২ ডিসেম্বর, ২০১৯  

    সফলতা ও উন্নয়নে দরকার সঠিক তথ্য

    বি আওয়ার ফ্রেন্ডস

    কর্মস্থলের যে পাঁচটি বদভ্যাস এখনই বদলানো জরুরি

    কর্মস্থলে কোনো বদভ্যাস আপনার চাকরির সর্বনাশ ডেকে আনতে পারে। ছবি-সংগৃহীত।

    কর্মস্থলের যে পাঁচটি বদভ্যাস এখনই বদলানো জরুরি

    প্লানেট ডেস্ক | ১১ নভেম্বর ২০১৯ | ৩:৪৬ অপরাহ্ণ

    অফিস বা কর্মস্থলে নানা কারণে কর্মজীবীদের মাঝে আচরণগত পরিবর্তন বা নতুন নতুন অভ্যাস তৈরি হতে পারে। সেটা হতে পারে কাজের চাপে, পারিবারিক জীবনে কোনো সমস্যার কারণে, বেতন কম বা কাজ করেও কর্তৃপক্ষ বা বসের কাছ থেকে প্রশংসা না পাওয়া এমনকি একই কাজ করার কারণে ইত্যাদি ইত্যাদি। আচরণগত পরিবর্তন বা নতুন অভ্যাস প্রথমদিকে স্বাভাবিক মনে পারে। তবে এসব স্বাভাবিক বা ছোটখাটো অভ্যাসই একদিন বদভ্যাসে পরিণত হয়ে কর্মক্ষেত্রে আপনার সর্বনাশ ডেকে আনতে পারে। কর্মস্থলে গড়ে ওঠা পাঁচটি বদভ্যাসের কথা টাইমস অব ইন্ডিয়া অবলম্বনে তুলে ধরা হলো-

    সময়ানুবর্তিতার অভাব : কর্মস্থলে স্টাফদের যে সমস্ত কর্মকাণ্ডের প্রতি সবচেয়ে বেশি লক্ষ্য রাখা হয় তার মধ্যে একটি হচ্ছে সময়ানুবর্তিতা এবং তাদের মনস্তত্ত্ব। আপনি যদি অফিসের প্রায় প্রতিটি মিটিংয়েই দেরিতে পৌঁছান এবং এমনকি সিদ্ধান্ত গ্রহণের ক্ষেত্রেও দেরি করেন তাহলে সেটি আপনার ব্যক্তিত্বের ব্যাপারে ভালো বার্তা দেয় না। এ অবস্থা থেকে উৎরাতে মিটিংয়ের জন্য নির্ধারিত সময়ের ১৫ মিনিট আগেই নিজের সময়সূচি ঠিক করে নিন যেটি আপনাকে নিয়মানুবর্তি হওয়ার জন্য অতিরিক্ত সময় দেবে।

    দিনের সময়ের দুর্বল পরিকল্পনা : দক্ষ ও অদক্ষ কর্মীদের পার্থক্য হচ্ছে গোছালো ও দক্ষরা সমস্ত দিনের পরিকল্পনা দিনের শুরুতেই করে থাকে। পরিকল্পনাকেই তারা প্রথম জিনিস বা দায়িত্ব হিসেবে ধরে নিয়ে দিনের কাজ শুরু করে। অফিসে যাত্রার আগেই যদি আপনি পুরো দিনের পরিকল্পনা করে নেন তাহলে দেখবেন এতে অফিস জীবন অধিকতর গোছালো ও সুন্দর হয়ে উঠবে। তাই কোনো একটি নির্দিষ্ট দিনে কী কী করবেন প্রথমেই তার একটা তালিকা করে নেন এবং সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কাজগুলো আলাদা করে রাখুন। দেখবেন অফিস সময় আপনার বেশ স্বাচ্ছন্যময় হয়ে উঠবে।

    একই ধরনের আরও আর্টিকেল পড়ুন

    কর্মস্থলে চাপমুক্ত থাকার ৫টি কার্যকর উপায়

    লাঞ্চে মাত্রাতিরিক্ত সময় ব্যয় : দুপুরের খাবারের জন্য বেশি সময় ব্যয় আপনাকে সতেজ করে তুললেও সেটি একইসঙ্গে সময় নষ্টকারী যা চূড়ান্তভাবে আপনার উৎপাদনক্ষমতার উপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলে। তাই লাঞ্চের সময়টার সঠিক ব্যবহার করুন। দিনের শেষভাগে করা লাগবে এমন বিষয়গুলো নিয়ে এ সময় একটু ভেবে নিতে পারেন বা সহকর্মীদের সঙ্গে আলোচনা করতে পারেন। এতে দুপুরের খাবার গ্রহণের পাশাপাশি সময়েরও সঠিক ব্যবহার হয়ে যাবে!

    ইমেইল যোগাযোগে অদক্ষতা : কর্মক্ষেত্রে যোগাযোগের এখন প্রধান উপায় হচ্ছে ইমেইল। তাই ইমেইল যোগাযোগে যদি দক্ষতার পরিচয় না দেন এবং পেশাদার না হন তাহলে সত্যিই পিছিয়ে পড়বেন। নানান সমস্যার মুখোমুখি হতে পারেন। ধরুন, ইমেইল খুলতে বা সাড়া দিতে দেরি হলো। তাহলে গুরুত্বপূর্ণ মিটিং বা কোনো কাজের ডেডলাইন মিস হতে পারে, কাজ নিয়ে অনাকাক্সিখত বিলম্ব বা বিভ্রান্তি তৈরি হতে পারে। এ ধরনের আচরণ নিঃসন্দেহে অপেশাদার হিসেবে বিবেচিত হবে। সুতরাং ইমেইল যোগোযোগে দক্ষতা বাড়ানোর একটি সহজ উপায় হলো ডেস্কটপে ইমেইল নোটিফিকেশন চালু রাখা যাতে দরকারি কোনো মেইল যেন চোখে পড়া থেকে বাদ পড়ে না যায়। অন্যথায় গুরুত্বপূর্ণ কোনো মেইল চোখ এড়িয়ে যাওয়ায় চাকরিও হারাতে হতে পারে!

    অপ্রস্তুত থাকা : অফিসের কোনো মিটিং বা প্রেজেন্টেশনের জন্য অপ্রস্তুত থাকাটা সবচেয়ে বাজে একটা জিনিস। এই বদভ্যাসটা যদি আপনার মধ্যে থাকে তাহলে সেটা হচ্ছে আপনার পেশাগত ভাবমূর্তির জন্য নিজের তরফে করা সবচেয়ে খারাপ জিনিস। বিষয়টি কর্তৃপক্ষের কাছে আপনার ব্যাপারে একটা খারাপ ধারণা দেবে যা চূড়ান্তভাবে আপনার কাজের মূল্যায়নের উপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারে। তাই অপ্রস্তুত থাকার মতো অস্বস্তিকর পরিস্থিতি মোকাবিলায় পরবর্তী মিটিং সামনে রেখে পূর্ববর্তী দিনই অফিসে পৌঁছে এতে কিছুটা সময় দেন। মিটিংয়ের দিন কী কী করা লাগতে পারে এ ব্যাপারে নিজেকে কিছুটা প্রস্তুত করে তুলুন। আগের দিনের সামান্য এই প্রস্তুুতি নিঃসন্দেহে মিটিং বা প্রেজেন্টেশনের দিন আপনাকে খুব ধীরস্থির ও শান্ত রাখবে।

    সবশেষ মনে রাখবেন, কর্মক্ষেত্র বা অফিস আপনার জীবনের সঙ্গে বেশ ঘনিষ্ঠভাবে জড়িয়ে আছে। তাই সেখানে সুন্দর থাকা মানে পারিবারিক বা ব্যক্তিগত জীবনও হাসি-খুশিতে ভরপুর। কর্মক্ষেত্রে অসুবিধার মধ্যে পড়তে পারেন এমন কর্মকাণ্ড বা আচরণ থেকে নিজেদের বিরত থাকতে হবে। সুতরাং উপরোক্ত পাঁচটি বদভ্যাস আপনার মধ্যে থাকলে সময়ক্ষেপণ না করে ঠিক এই মুহূর্তে থেকে সেগুলো বদলানোর চেষ্টা করুন। সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া।

    Comments

    comments

  • আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩
    ১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
    ২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
    ২৮২৯৩০৩১  
    জাতিসংঘে শিক্ষানবিশ
    জাতিসংঘে শিক্ষানবিশ