• লেইটেস্ট

    কামিং সুন

    শুক্রবার     ১০ এপ্রিল, ২০২০  

    সফলতা ও উন্নয়নে দরকার সঠিক তথ্য

    বি আওয়ার ফ্রেন্ডস

    নর্দান ইউনিভার্সিটির আয়োজনে ঢাকায় বসছে ওয়ার্ল্ড মার্কেটিং সামিট ও কটলার অ্যাওয়ার্ড

    ওয়ার্ল্ড মার্কেটিং সামিট সামনে রেখে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখছেন নর্দার্ন ইউনিভার্সিটির চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. আবু ইউসুফ মো. আব্দুল্লাহ। ছবি-ক্যাম্পাস প্লানেট

    নর্দান ইউনিভার্সিটির আয়োজনে ঢাকায় বসছে ওয়ার্ল্ড মার্কেটিং সামিট ও কটলার অ্যাওয়ার্ড

    প্লানেট ডেস্ক | ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ৮:৫৬ পূর্বাহ্ণ

    দেশের বেসরকারি খাতের অন্যতম একটি বিশ্ববিদ্যালয় নর্দান ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ ঢাকায় ওয়ার্ল্ড মার্কেটিং সামিট ২০২০ আয়োজন করতে যাচ্ছে। এতে অংশ নিতে বিপণন (মার্কেটিং) শাস্ত্রের বিশ্ব গুরু হিসেবে খ্যাত ফিলিপ কটলার ও তার দল আগামী মার্সে ঢাকায় আসছেন। ২৮ মার্চ হোটেল ওয়েস্টিনে অনুষ্ঠিত হবে এ সামিট। এতে বিশ্বের মার্কেটিং নেতৃবৃন্দ, ইন্ডাস্ট্রি এক্সপার্ট, মার্কেটিং দুনিয়ায় গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখা ব্যক্তিবর্গ, সফল উদ্যোক্তা, নিউরোমার্কেটার, সামাজিক উদ্যোক্তা, ডিজিটাল মার্কেটিং গুরুরা বক্তব্য প্রদান করবেন।

    এ উপলক্ষ্যে ৫ ফেব্রুয়ারি এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে নর্দান ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ। এসময় উপস্থিত সাংবাদিকদের সামনে ‘ওয়ার্ল্ড মার্কেটিং সামিট-২০২০’ সর্ম্পকে ব্রিফিং করেন নর্দান বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশ ট্রাস্টের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. আবু ইউসুফ মো. আব্দুল্লাহ।



    বাংলাদেশে এই সামিট আয়োজনের প্রশ্নে নর্দান বিশ্ববিদ্যালয়ের চেয়ারম্যান জানান, ওয়ার্ল্ড মার্কেটিং সামিট (ডব্লিউএমএস) হলো বিশ্বব্যাপী একটি স্বতন্ত্র সংগঠন, যার প্রধান কার্যালয় হলো কানাডার টরেন্টোতে। ২০১১ সালে আধুনিক মার্কেটিংয়ের জনক ফিলিপ কটলারের হাতে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। সংগঠনটির উদ্দেশ্য হলো বিশ্বের বিভিন্ন উদ্যোক্তাদের একত্রিত করা যার ফলে দারিদ্র বিমোচন, ব্যবসার প্রসার, স্বাস্থ্য ও পরিবেশের উন্নতি সাধন করা যায়। এই সম্মেলনের মাধ্যমে দেশি -বিদেশি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে নিবিড় সম্পর্ক গড়ে উঠবে এবং আধুনিক মার্কেটিংয়ের বিস্তার ঘটবে।

    আসন্ন সামিটে ইন্টারন্যাশনাল স্পিকার হিসেবে উপস্থিত থাকবেন ওয়ার্ল্ড মার্কেটিং সামিটের প্রতিষ্ঠাতা প্রফেসর ফিলিপ কটলার, বিজনেস ইকোনোমিকের বিখ্যাত প্রফেসর ড. মার্ক অলিভার অপ্রেসনিক, ইংল্যান্ডর সাফলক ইউনিভার্সিটির মার্কেটিংয়ের প্রফেসর লুইজ মাউনটিনহোও কটলার ইমপ্যাকট ইনকরপোরেটেড এর সিইও সাদিয়া কিবরিয়া।

    নিচের স্টোরিটিও আপনার ভালো লাগতে পারে :

    পরিবার পরিকল্পনা মিডিয়া ফেলোশিপ ২০২০

    সংবাদ সম্মেলনে প্রফেসর ড. আব্দুল্লাহ বলেন, ‘বাংলাদেশে এই প্রথম কটলার এওয়ার্ড প্রদান করা হচ্ছে। দেশে করপোরেট লিডারদের মধ্যে যারা বৈশ্বিক প্রভাব বিস্তার করতে পেরেছেন এবং অর্থনীতিতে ইতিবাচক ভূমিকা রেখেছে তাদেরকে এ সামিটে উক্ত অ্যাওয়ার্ড প্রদান করা হবে। যদি কোনো ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান মনে করে তারা ব্যবসায় উল্লেখ্যযোগ্য অবদান রেখেছে, তাহলে ফিলিপ কটলার অ্যাওয়ার্ডের জন্য আবেদন করতে পারবেন। লাইফটাইম এচিভমেন্ট, মাস্টার-ক্লাস এচিভমেন্ট, আইকোনিক এচিভমেন্ট ও ইন্ডাস্ট্রিয়াল এচিভমেন্ট এই চারটি ক্যাটাগারিতে সর্বমোট ২৮টি এওয়ার্ড প্রদান করা হবে। কটলার অ্যাওয়ার্ডের জন্য আবেদনের শেষ তারিখ ২৫ ফেব্রুয়ারি।

    অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের বিশিষ্ট বিপণন নেতৃবৃন্দ, ব্যবস্থাপক, পরিচালক ও বিপণন পেশাজীবীরা নিবন্ধন করে অংশহগ্রহণ করতে পারবেন। এছাড়া দেশ সেরা প্রতিষ্ঠানের উচ্চপদস্থদের সঙ্গে বিশেষ অধিবেশনে মতবিনিময় (মাস্টার ক্লাস) করবেন ফিলিপ কটলারের বিশেষ টিম।

    লিখিত বক্তব্যে ড. আব্দুল্লাহ আরো উল্লেখ করেন, ‘এবারের সামিটটি আয়োজন করেছে কটলার ইমপ্যাকট ইনকরপোরেটেড এবং তাদের সার্বিকভাবে সহযোগিতা করছে নর্দান ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ।’

    মার্কেটিং সামিট সম্পর্কে সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে যোগাযোগ করুন: https://wmsbangladesh.com/

    কটলার ইমপ্যাকট ইনকরপোরেটেড (বাংলাদেশ অফিস) প্রাসাদ ট্রেড সেন্টার, ৬ কামাল আতাতুর্ক এভিনিউ (৮ম তলা), বনানী, ঢাকা। মোবাইল- ০১৭৯৯৯৯৩৩৭০-৭২, মেইল- info@wmsbangladesh.com, tickets@wmsbangladesh.com, nominations@wmsbangladesh.com,

    ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

    ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮

    ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮

    ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮

  • আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০
    ১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
    ১৮১৯২০২১২২২৩২৪
    ২৫২৬২৭২৮২৯৩০  
    কতটি দেশে এখন বাংলাদেশের মিশন রয়েছে?
    কতটি দেশে এখন বাংলাদেশের মিশন রয়েছে?