• লেইটেস্ট

    বুধবার     ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯  

    সফলতা ও উন্নয়নে দরকার সঠিক তথ্য

    বি আওয়ার ফ্রেন্ডস

    বাউয়েটে জাতির জনকের শাহাদাৎবার্ষিকী পালন

    প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দিচ্ছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. মোস্তফা কামাল (বামে); উপস্থিত অতিথিরা (ডানে)

    বাউয়েটে জাতির জনকের শাহাদাৎবার্ষিকী পালন

    প্লানেট ডেস্ক | ১৫ আগস্ট ২০১৯ | ৯:১৫ অপরাহ্ণ

    বাংলাদেশ আর্মি ইউনিভার্সিটি অব ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজি (বাউয়েট) ক্যাম্পাসের স্কাইলাইট হলে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদাৎবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. মোস্তফা কামাল। বক্তব্য রাখেন আরও অনেকে যাদের মধ্যে ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার অবসরপ্রাপ্ত কর্নেল মোহাম্মদ হামিদুল হক, পিএসসি; ব্যবসায় অনুষদের ডিন ও ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ড. মো. শাহ আলম, রেজিস্ট্রার ড. মো. মোশারফ হোসেন প্রমুখ।

    উপস্থিত ছিলেন সকল অনুষদের ডিন, বিভাগীয় প্রধান, প্রক্টর, ছাত্র কল্যাণ উপদেষ্টা, অন্যান্য বিভাগের শিক্ষকমন্ডলী, ছাত্র-ছাত্রী, কর্মকর্তা ও কর্মচরীবৃন্দ। অনুষ্ঠানের শুরুতে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। অনুষ্ঠানের শেষে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনীভিত্তিক প্রামাণ্য চলচ্চিত্র প্রদর্শনী করা হয়। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন রসায়ন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মো. সাইফুল ইসলাম।

    প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, ‘আমাদের মহান স্বাধীনতা ও  বাঙালি জাতির মুক্তির সংগ্রামে নেতৃত্ব দিয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান যে অবদান রেখে গেছেন তা এ জাতি শ্রদ্ধার সাথে যুগ যুগ ধরে স্মরণে রাখবে। আমাদের দায়িত্ব হলো জ্ঞান ও গরিমায় সমৃদ্ধশালী হয়ে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তোলা।’
    শোক দিবস পালনের অংশ হিসেবে বাদ জোহর বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদে বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত করা হয়।

    Comments

    comments

    ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮

    ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮

    ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮

    ০৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮

    ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮

  • আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩
    ১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
    ২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
    ২৮২৯৩০  
    ডায়মন্ড আজাদের জাতীয় কৃতিত্ব
    ডায়মন্ড আজাদের জাতীয় কৃতিত্ব