• লেইটেস্ট

    বুধবার     ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯  

    সফলতা ও উন্নয়নে দরকার সঠিক তথ্য

    বি আওয়ার ফ্রেন্ডস

    যুক্তরাষ্ট্রের বিশ্ববিদ্যালয়ে স্কলারশিপের সুযোগ

    যুক্তরাষ্ট্রের বিশ্ববিদ্যালয়ে স্কলারশিপের সুযোগ

    বিদেশ প্রতিনিধি | ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ | ১২:০৫ অপরাহ্ণ

    বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য স্কলারশিপ ঘোষণা করেছে যুক্তরাষ্ট্রের শতবর্ষী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ওয়েবস্টার বিশ্ববিদ্যালয়। আজ রোববার ঢাকার বনানীতে নরডিক হোটেলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বিশ্ববিদ্যালয়ের দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলবিষয়ক পরিচালক অ্যাশলে গ্রায়ারসন স্কলারশিপের ঘোষণা দেন।

    গ্রায়ারসন আরো বলেন, বাংলাদেশের যেসব শিক্ষার্থী আগামী জানুয়ারি সেশনে ভর্তির জন্য ১৭ নভেম্বরের মধ্যে নাম নিবন্ধন করবেন, তাঁরা মেধার ভিত্তিতে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে স্কলারশিপ পাবেন।

    যুক্তরাজ্যভিত্তিক আন্তর্জাতিক শিক্ষাপরামর্শ প্রতিষ্ঠান টিঅ্যান্ডটি কনসালটেন্সির বাংলাদেশ অফিস এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে। টিঅ্যান্ডটি বাংলাদেশে ওয়েবস্টার বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তিবিষয়ক প্রতিনিধি প্রতিষ্ঠান।

    টিঅ্যান্ডটি কনসালটেন্সির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ইফতি আহমেদ ও পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) মো. লতিফুল হায়দার এবং গ্লোবাল ইউনিভার্সিটির কান্ট্রি রিপ্রেজেনটেটিভ সিদ্দিক রহমানও সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন।

    গ্রায়ারসন বলেন, ওয়েবস্টার বিশ্ববিদ্যালয় কোর্স চলাকালীন তার শিক্ষার্থীদের খণ্ডকালীন চাকরির ব্যবস্থা করে এবং কোর্স সম্পন্ন হওয়ার পর তাদের পূর্ণকালীন চাকরি পেতে সহযোগিতা করে।

    টিঅ্যান্ডটি কর্মকর্তারা জানান, ওয়েবস্টার বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির জন্য একজন শিক্ষার্থীকে সাধারণত ৪০ থেকে ৭০ ডলার ব্যয়ে আবেদনপত্র কিনতে হয়। কিন্তু টিঅ্যান্ডটি কনসালটেন্সির মাধ্যমে ভর্তি হলে কোনো শিক্ষার্থীর আবেদনপত্রের এই খরচ লাগে না। তাঁরা জানান, ওয়েবস্টার বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশাপাশি আরো বহুসংখ্যক বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির ক্ষেত্রে সহযোগিতা করে টিঅ্যান্ডটি কনসালটেন্সি।

    Comments

    comments

    ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

    ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮

    ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮

    ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮

    ০৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮

    ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮

  • আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩
    ১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
    ২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
    ২৮২৯৩০  
    কতটি দেশে এখন বাংলাদেশের মিশন রয়েছে?
    কতটি দেশে এখন বাংলাদেশের মিশন রয়েছে?